শিক্ষা ঐক্য প্রগতি


শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড

Email : rahmanmunju@gmail.com

header ads

শাবনুরের জন্মদিন ও বিজয় মেলা

অনলাইন ডেস্ক : ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯,  সময়: ১২:৩০

শুভ জন্মদিন শাবনুর :

ঢালিউডের ’শিশিরস্নাত’ খ্যাত অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত চিত্রনায়িকা শাবনুর। যদিও বর্তমানে চলচ্চিত্র থেকে অনেকটাই দুরে রয়েছেন, তারপরও যেন বিন্দুমাত্র জনপ্রিয়তা কমেনে তার। এদেশের সব শ্রেনির দর্শকের উজ্জল তারা হয়েই রয়েছেন শাবনুর। অসংখ্য হিট ছবির এ নায়িকা আজ ৪১ তম এ পা দিলেন। দেশের মাটিতে নিজের ৪০ তম জন্মদিন পালন করতে সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া থেকে ঢাকায় এসেছেন তিনি। তবে চলচ্চিত্রের কাছের কিছু মানষদের নিয়ে অনেকটা ঘরয়ো ভাবেই জন্মদিন উদযাপন করছেন বলে জানিয়েছেন এ তারকা।

চিত্র শিল্পী : শাবনুর

১৯৭৯ সালের এই দিনে যশোর জেলার শার্শা উপজেলার নাভারণে জন্মগ্রহন করেন তিনি। দুই যুগের ক্যারিয়ারে অসংখ্য ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র কাজ করেছেন। প্রায়ত পরিচালক এহতেশামের হাত ধরে চলচ্চিত্রের পথচলা শুরু তার। ’চাঁদনি রাতে’ নামের সে সিনেমা মুক্তির পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি শাবনুরকে। পরবর্তীতে প্রায়ত জহিরুল হকের ‘তুমি আমার’ চলচ্চিত্রে সালমান শাহর সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করে চলে আসেন আলোচনায়। একই নায়কের সঙ্গে একে একে ‘বিক্ষোভ’, ‘তোমাকে চাই’, ‘স্বপ্নের ঠিকানা’, ’মহামিলন’, ’বিচার হবে’, ’জীবন সংসার’ ও ‘আনন্দ অশ্রু’সহ আরো বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র তাকে নিয়ে গেছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে। সে সময় চিত্রনায়ক ওমর সানীর সঙ্গে তার ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র ওয়াকিল আহমেদের ‘প্রেমের অহংকার’ ও ‘অধিকার চাই’। সালমানের মৃত্যুর পর শাবনুর জটি হিসেবে রিযাজের বিপরীতে কাজ শুরু করেন। তার সঙ্গেও অনেক ব্যবসা সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন শাবনুর।

বিজয় মেলায় লাল-সবুজে মেতে ছিল শোবিজ :

মহান বিজয় দিবসে বিজয় মেলা অনুষ্ঠিত হয়।বিজয় দিবস মানেই আনন্দ ও উচ্ছাসের দিন। সোমবার মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মেতেছিল গোটা দেশ। বাদ যায়নি শোবিজ অঙ্গনও। চলচিচত্র শিল্পী সমিতি , অভিনয় শিল্পী সংঘ, শিল্পকলা একাডেমিসহ বিভিন্ন অঙ্গ- সংগঠনের আয়োজনে তারকারা মেতেছিল লাল সবুজ রঙে।এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেদের অ্যাকাউন্টে লাল ও সবুজ শাড়ি-পাঞ্জাবি পরে ছবি শেয়ার করে তারা।তবে বিজয় ‍ুদিবস উপলক্ষে বেশিরভাগ তারকাই শুটিং করেননি। অভিনেত্রী সোহানা সাবা, লারা লোটাস, নিঝুম রুবিনা, জাকিয়া বারী মম, চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ সহ ছোট ও বড় পর্দার সব তারকাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিজয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। কেউ আবার ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন বিজয়ের অনুভুতি।

এ দিন ভোরে বিএফডিসির প্রাঙ্গণে নির্মিত স্মৃতিসৌধ ‘উত্তাপ’- এ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শিল্পী সমিতির সাধারন সম্পাদক জায়েদ খান, অভিনেত্রী অঞ্জনা সুলতানা, ওমর সানি, অমিত হাসানও জয় চৌধুরী। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন নৃত্য পরিচালক মাসুম বাবুল, আজিজ রেজা, সাইফুল ইসলাম সহ অনেকে।

বেলা ১১ টায় চ্যানেল আই প্রঙ্গণে তারকাদের নিয়ে আয়োজন করা হয় ‘বিজয় মেলা- ২০১৯’। জাঁকজমকপূর্ন এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বনেণ্য শিল্পী আজাদ রহমান, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের তিমির নন্দী, কাদেরী কিবরিয়া, ফকীর আলমগীর, শাহীন সামাদ, স্বধীন বাংলা ফুটবল দলের সদস্য সাইদুর প্যাটেল সহ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিরা। এ সময় প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা সুরের ধারার শিল্পীদের সঙ্গে নিয়ে দেশাত্মবোধক গানের একটি কোরাশ পরিবেশন করেন। এ ছাড়াও রফিকুল আলম, ফকীর আলমগীর, কিরণ চন্দ্ররায়, শাহীন সামাদের সংগীত পরিবেশনের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করেছেন মেলায় আগত বিশিষ্টজনরা।

শাবনুর
শাবনুর

সন্ধা ৭ টায় শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটারে প্রদর্শিত নাটক ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’।এর মধ্য দিয়ে নাটকটির ২০০ তম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হলো।এ নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন ফেরদৌসী মজুমদার, কেরামত মওলা, তোফা হোসেন, ত্রপা মজুমদার, মারুফ কবির, পরেশ আচর্য , সমর দেব, খুরশিদ আলম, নূরুল ইসলাম, রাশেদুল আওয়াল, জোয়ারদার সাইফ, তামান্না ইসলাম, রুনা লাইলা, তানভীর হোসেন সমাদানী প্রমুখ।

বরাবরের মতো এবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিজয় দিবসের সবচেয়ে বড় কনসার্ট। ’গৌরবময় বিজয়ের ৪৮ বছর’ শিরোনামে এবারের আয়োজনটি করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ ( ডিএমপি )। এতে অংশ নিয়েছে নগরবাউল জেমস ও ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ বেগম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহসীন হল মাঠে দুপুর ২টা থেকে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়। জেমস, মমতাজ ছাড়াও গান পরিবেশন করেছে চিরকুট ব্রান্ড।

মহান বিজয় দিবসে এই বিজয় মেলা  ছিল মানুষের মনের মেলা । এখানে হাজারো মানুষের ঢল ছিল। মানুষ নাচে গানে আনন্দে উত্তাল ছিল। দেশের বরেণ্য শিল্পীরা এ সমস্ত গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন। যা মানুষকে আনন্দে মুখরিত করে তোলে।


Post a Comment

0 Comments